অজয় দেবগনের বাবা বীরু দেবগন ছিলেন গ্যাংস্টার

Ajay Devgan's father Veeru Devgan was a gangster

আপনি জানেন কি অজয় দেবগনের বাবা বীরু দেবগন অ্যাকশন ডিরেক্টর হওয়ার আগে একজন গ্যাংস্টার ছিলেন।

অজয় দেবগন একজন বলিউড অভিনেতা যিনি শতাধিক সিনেমায় কাজ করেছেন এবং করছেন। যদিও তিনি প্রায়শই তার বাবা বীরু দেবগনকে সব কৃতিত্ব দেন। কফি উইথ করণ সিজন ৮-এ, অজয় প্রকাশ করেছেন কীভাবে তার প্রয়াত বাবা বীরু দেবগন একদম শূন্য থেকে একজন বিখ্যাত পরিচালক এবং অ্যাকশন কোরিওগ্রাফার হয়ে উঠেছিলেন।

কফি উইথ করণ সিজন ৮- নবম পর্বে, করণ তার অতিথি অজয় দেবগনকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন যে তিনি ভেবেছিলেন যে তার বাবা বীরু দেবগন তার পাওনা পেয়েছেন কিনা। বিরতি না নিয়েই অভিনেতা বললেন, “অবশেষে”। তারপরে তিনি বর্ণনা করেছন কীভাবে তার বাবা খুব অল্প বয়সে বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়েছিলেন এবং কিভাবে সেই সময়ের একজন সিনিয়র অ্যাকশন ডিরেক্টরের সাথে তার(বীরু দেবগন) দেখা হয়েছিল।

অজয় বর্ণনা করেছেন যে তার বাবা ১৩ বছর বয়সে পুরানো পাঞ্জাবে তার বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়েছিলেন। তিনি ট্রেনের টিকিট ছাড়াই তৎকালীন বোম্বে আসেন এবং তাকে জেল খাটা লেগেছিল এর জন্য। যেহেতু তার কোন কাজ ছিল না, তাই তিনি (বীরু দেবগন) অনাহারে থাকতেন বেশিরভাগ সময়। বীরু দেবগন প্রতিদিন একটি ক্যাব ধুয়ে দেবার বদলে ক্যাবটিতে ঘুমাতে পারতেন।

অজয় দেবগনের বাবা বীরু দেবগন ছিলেন গ্যাংস্টার

সেখান থেকে শুরু করে অবশেষে একজন কাঠমিস্ত্রি হয়েছিলেন বীরু। অজয় আরও বলেন তারপর সে সায়ন-কলিওয়াড়া এলাকার গুন্ডা হয়ে ওঠে। সায়ন-কলিওয়াড়া এলাকায় গ্যাং ওয়ার ছিল। একদিন একজন প্রবীণ অ্যাকশন ডিরেক্টর মিঃ রবি খান্না পাশ দিয়ে যাচ্ছিলেন এবং সেখানে ঐ রাস্তায় লড়াই চলছিল। তাই, মিঃ রবি খান্না গাড়ি থামিয়ে লড়াই এর পর আমার বাবাকে ডেকে জিজ্ঞেস করল, ‘তুমি কী কর?’ এবং সে বলল ‘আমি একজন কাঠমিস্ত্রি’। তখন, তিনি বলেছিলেন, ‘তুই তো মারামারি ভালই পারিস, কাল এসে আমার সাথে দেখা কর। তারপর থেকেই বীরু দেবগন এর অ্যাকশন ডিরেক্টর হবার দিন শুরু হয়।

বীরু দেবগন ২০০ টিরও বেশি বলিউড চলচ্চিত্রের সাথে কাজ করেছেন। যার মধ্যে রয়েছে রোটি কাপরা অর মাকান, মি. নটওয়ারলাল, ফুল অর কান্তে, রাম তেরি গঙ্গা মেলি, এবং আরও অনেকে। শুধু অজয় এর বাবাই নন, অজয়ের মা বীণা দেবগনও ইন্ডাস্ট্রির একজন প্রখ্যাত চলচ্চিত্র প্রযোজক ছিলেন।

Scroll to Top